থুথু-বিতর্কে কারণ দর্শাতে বলা হল জবিকে, ৩ মার্চ বৈঠকে সিদ্ধান্ত

Spread the love

রাইট স্পোর্টস ওয়েব ডেস্ক

কলকাতা, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ইস্টবেঙ্গলে আবার ধাক্কা! আগামী ৩ মার্চ পর্যন্ত জবি জাস্টিনের খেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল এআইএফএফ। সর্বভারতীয় ফুটবল সংস্থা চিঠি পাঠিয়েছে ইস্টবেঙ্গলকে। ২৫ ফেব্রুয়ারি যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে আইজল এফসি-র বিরুদ্ধে খেলার সময় জবি থুথু ছিটিয়েছিলেন আইজলের বিদেশি ওমোলাজার মুখে। টিভি-তে সেই ঘটনার ভিডিও দেখে এই সিদ্ধান্ত, জানিয়েছেন আই লিগ-এর সিইও সুনন্দ ধর। জবিকে কার্ণ দর্শাতে বলা হয়েছে। একই নির্দেশ ওমোলাজার জন্যও। এআইএফএফ-এর শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে ৩ মার্চ বৈঠকে। ফলে, ২৮ ফেব্রুয়ারি রিয়েল কাশ্মীর এবং ৩ মার্চ মিনার্ভার বিরুদ্ধে জবি খেলতে পারবেন না। অপরাধের মাত্রা নির্ধারণ করে কী শাস্তি দেয় এআইএফএফ, জানতে জবি এবং ইস্টবেঙ্গলকে অপেক্ষা করতে হবে ৩ মার্চ পর্যন্ত।

সোমবার যুবভারতীতে ৭০ মিনিটে রেফারি উমেশ বোরা লাল কার্ড দেখিয়েছিলেন করিম ওমোলাজাকে। জবিকে ফাউল করেছিলেন ওমোলাজা। হলুদ কার্ড দেখানোর যোগ্য ফাউল বিবেচনা করে কার্ডও দেখানো হয়েছিল তাঁকে। কিন্তু রেফারির সেই সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করায় সঙ্গে সঙ্গেই দ্বিতীয়বার হলুদ কার্ড দেখানো হয় তাঁকে। ওমোলাজা অবশ্য বারবারই বলতে বা দেখাতে চেয়েছিলেন রেফারিকে অন্য কিছু। রেফারি তখন তা দেখতে পাননি। পরে বোঝা যায়, জবির থুথু ফেলার দিকে রেফারির দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চেয়েছিলেন ওমোলাজা।

আইজলের বিরুদ্ধে ইস্টবেঙ্গলের এবারের আই লিগে দুটি ম্যাচেই বিতর্ক থাকল গোল নিয়েও। ২৪ নভেম্বর মিজোরামের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে ৪০ মিনিটে চুলোভার ফ্রিকিক থেকে বল বারে লেগে গোললাইনের ভেতরে পড়েছিল। ইস্টবেঙ্গলের ফুটবলাররা গোলের আবেদন করলেও রেফারি কর্ণপাত করেননি। এআইএফএফও পরে টেলিভিশনে সেই রেকর্ডিং দেখে সিদ্ধান্ত নেয়নি কোনও। আইজল ওই ম্যাচেই পেয়েছিল এবারের আই লিগে তাদের প্রথম জয় (৩-২)। আবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ক্রোমার গোল বাতিলের সিদ্ধান্তও বিতর্কিত। ওই গোল হলে আইজল প্রথমার্ধেই ২-০ এগিয়ে যেতে পারত, কিন্তু রেফারি বাতিল করেন বিপক্ষের গোলরক্ষককে ক্রোমা বাধা দিয়েছিলেন বলে। হলুদ কার্ডও দেখানো হয়েছিল ক্রোমাকে।

কিন্তু যা নিয়ে বিতর্ক নেই, আপাতত জবি জাস্টিনের আই লিগে পরপর দুটি ম্যাচ খেলা নিয়ে নিষেধাজ্ঞা। কাশ্মীর এবং মিনার্ভার বিরুদ্ধে তাঁকে পাবেন না আলেখান্দ্রো মেনেন্দেজ। আই লিগের শেষ ম্যাচে গোকুলমের বিরুদ্ধে খেলতে পারেন কিনা, জানা যাবে ৩ মার্চ।

Leave a Reply