দ্বিতীয় ইনিংসে শুরুতেই জয় খালিদের

Spread the love

রাইট স্পোর্টস ওয়েব ডেস্ক

কলকাতা, ৯ জানুয়ারি ২০১৯

কলকাতায় দ্বিতীয় ইনিংস জয় দিয়ে শুরু করলেন খালিদ জামিল। যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে গতবারের চ্যাম্পিয়ন মিনার্ভা এফসি-কে হারিয়ে। ১২ ম্যাচে পঞ্চম জয় পেল মোহনবাগান। ১৮ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় অবশ্য থেকে গেল ষষ্ঠ স্থানেই। কিন্তু, নতুন কোচের আমলে যেন বাড়তি আত্মবিশ্বাসী সবুজমেরুন শিবির।

ম্যাচের ৩০ মিনিটে মোহনবাগানকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ওমর এল হুসেইনি। ইউতা কিনোয়াকি এবং সোনি নর্দের যুগলবন্দিতে আক্রমণে এগিয়েছিল মোহনবাগান। সোনি বল বাড়িয়েছিলেন দিপান্দা দিকাকে, বক্সের মধ্যে যাঁকে ফেলে দিয়েছিলেন তুরে, অন্তত তেমনই মনে হয়েছিল রেফারির। ফলে, পেনাল্টি। এবং ওমর ভুল করেননি স্পট কিক থেকে দলকে এগিয়ে দিতে।

মোহনবাগানের দ্বিতীয় গোল বিরতির পর, ৬৯ মিনিটে। এবারও সোনির থ্রু। ঠিক সময়ে অফসাইডের ফাঁদ এড়িয়ে বেরিয়ে এসেছিলেন দিকা। সহজেই পরাস্ত করেন মিনার্ভার গোলরক্ষক ভাস্কর রায়কে।

প্রথমার্ধে, পেনাল্টি পাওয়ার আগে, ২০ মিনিটে দিকার জন্যই পেনাল্টির জোরালো আবেদন উঠেছিল। সেবারও তুরেই ছিলেন খলনায়ক। তবে, রেফারি সেই পেনাল্টির আবেদন সাড়া দেননি। যেমন, দলরাজের ফাউলে পরিবর্ত মাকান ছোটে পড়ে গিয়েছিলেন বলে পেনাল্টির দাবি জানিয়েছিল মিনার্ভাও, ৮৩ মিনিটে, যা মানেননি রেফারি।

শঙ্করলাল চক্রবর্তীর জায়গায় কোচ হিসাবে এসে খালিদ সময় পেয়েছিলেন মাত্র ২৪ ঘন্টা। রিয়েল কাশ্মীরের বিরুদ্ধে শঙ্করের শেষ ম্যাচের প্রথম দলে পাঁচ পরিবর্তন। হেনরি, খিয়াংতে, শৌভিক, লালছনকিমা এবং অরিজিৎকে বসিয়ে খালিদ দলে নিয়েছিলেন দিপান্দা, আজহারউদ্দিন মল্লিক, কালদেইরা, গুরজিন্দর এবং দলরাজ সিংকে। শারীরিক দিক দিয়ে শক্তসমর্থদের শুরুতে দলে রেখেছিলেন আইজলকে ২০১৬-১৭ মরসুমে আই লিগ দেওয়া কোচ। ফলও পেলেন হাতেনাতে। যুবভারতীতে এবারের আই লিগে লাজং ম্যাচের পর দ্বিতীয়বার গোল খেল না মোহনবাগান, পেল দ্বিতীয় জয়ও। সোনি ছন্দে থাকায় মোহনবাগানের খেলাও মন ভরাল সমর্থকদের।

পরপর দুটি ম্যাচে ০-২ হেরে গতবারের চ্যাম্পিয়ন মিনার্ভা ১২ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে থেকে গেল অষ্টম স্থানেই।

মোহনবাগানের পরের খেলা – বনাম নেরোকা, ১২ জানুয়ারি, যুবভারতী

Leave a Reply