এশীয় স্তরে বড়দাদের বিরুদ্ধে খেলতে এসেছি : কনস্টান্টাইন

Spread the love

বৃহস্পতিবার ওমানের বিরুদ্ধে প্রীতি ম্যাচ, দেখা যাবে না টিভিতে!

এশিয়ান কাপের প্রস্তুতির অঙ্গ হিসাবে বৃহস্পতিবার ওমানের বিরুদ্ধে প্রীতি ম্যাচ খেলবে ভারতীয় ফুটবল দল। আবু ধাবির বানিয়াস স্টেডিয়ামে এই ম্যাচ দুই দলের সম্মতিতে দরজা বন্ধ করে, ফাঁকা গ্যালারির সামনে, ভারতীয় সময় সন্ধে সাড়ে সাতটায় শুরু। এই ম্যাচ দেখা যাবে না টেলিভিশনে। দুই দলই প্রতিযোগিতার আগে নিজেদের প্রস্তুতির খবর দিতে চায় না প্রতিপক্ষদের!ফিফা র‍্যাঙ্কিং অনুসারে ওমান ৮২, ভারত ৯৭। দু-দেশের শেষ দেখা হয়েছিল ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচে। দুটি ম্যাচই জিতেছিল ওমান। বেঙ্গালুরুতে সুনীল ছেত্রীর গোল সত্ত্বেও ম্যাচ জিতেছিল ২-১, নিজেদের দেশের মাঠে ৩-০।ভারতের কোচ স্টিফেন কনস্টান্টাইন এআইএফএফ-এর ওয়েবসাইটকে জানিয়েছেন, ‘সহজ ম্যাচ হবে না। সহজ ম্যাচ খেলতে হবে, এমন আশা নিয়ে আমরা আসিনি আবুধাবিতে। এসেছি এশীয় স্তরে বড়দাদের বিরুদ্ধে খেলতে। তাই বেশ কঠিন ম্যাচ। আগে আমরা জর্ডন এবং চিনের বিরুদ্ধে খেলেছি। এমন বড় শক্তির দলগুলোর বিরুদ্ধে খেললেই মূল প্রতিযোগিতার জন্য সবচেয়ে ভালভাবে তৈরি হওয়া সম্ভব।’বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ওমানের বিরুদ্ধে ভারত খেলেছিল ২০১৫ সালের জুন এবং অক্টোবর মাসে। শ্রী কান্তিরভায় ম্যাচের প্রথম মিনিটেই পিছিয়ে পড়েছিল ভারত। সমতা ফিরেছিল সুনীলের গোলে। পরে, পেনাল্টিতে গোল করে ওমানকে জিতিয়েছিলেন আমাদ আল হোসনি।কনস্টান্টাইনের মতে, ‘গ্রুপের প্রথম ম্যাচ ছিল। হেরেছিলাম, দুর্ভাগ্য। তবে, তারপর থেকে বহু দূর এগিয়েছে ভারতীয় ফুটবল। এখন দল হিসাবে আমরা অনেক বেশি উন্নত এবং দলে তরুণ ফুটবলারের সংখ্যাও বেশি।’ কোচের বক্তব্যে সমর্থন জানিয়েছেন সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার প্রণয় হালদার। বেঙ্গালুরুতে সেই ম্যাচে প্রণয় অবশ্য ছিলেন না। বলেছেন, ‘মাঠে আমরা এখন অনেক বেশি সংগঠিত। সেই সময়ের তুলনায় ফুটবলাররা বেশি পরিণতও।’এশিয়ান কাপের প্রস্তুতিতে সবার আগে আবুধাবিতে পৌঁছেছে ভারতীয় দল। অনুশীলনের সুযোগসুবিধা এবং অন্যান্য ব্যবস্থাপনায় খুবই খুশি কনস্টান্টাইন। ‘সব কিছুই পরিকল্পনামাফিক চলছে। আমরা ঠিক পথেই এগোচ্ছি।’ প্রসঙ্গত, এশিয়ান কাপে ভারতের প্রথম ম্যাচ আগামী ৬ জানুয়ারি, থাইল্যান্ডের বিরুদ্ধে।

Leave a Reply